সর্বশেষঃ

ভাণ্ডারিয়া ও রাজাপুরের মাদক ব্যবসায়ীরা ব্যস্ত: পুলিশী তৎপরতা বৃদ্ধির দাবি

  1. বিশেষ প্রতিনিধি:

সারা দেশের ন্যায় ঝালকাঠির রাজাপুর ও পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলায়ও চলছে লকডাউন। লকডাউন কার্যক্রম বাস্তবায়নে ব্যাস্ত সময় পার করছেন সকল প্রশাসন। এই সুযোগে মাদক ব্যাবসায়ীরা মাঠে অতি তৎপর হয়ে উঠেছে বলে অনুমান করছেন এলাকার সচেতন মহল।

একটি সুত্র জানায়, রাজাপুরের কাটাখালী বাজার ও ভাণ্ডারিয়া উপজেলার সাথে মাদক ব্যবসায়ীদের নিরাপদ রুট হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। এলাকাবাসী জানান, রাজাপুরের কাটাখালী বাজার এলাকা ও বর্ডার এলাকার মুন্দিখালী গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে এ সব মাদক কারবারিরা প্রায়ই মিলিত হয় এবং মাদক কারবারিরা বাদক কেনা-বেচা করে।  

 রাজাপুর-ভাণ্ডারিয়াস্থ মুন্দিখালী গ্রামে দিন দুপুর ও গভীর রাত প্রযর্ন্ত প্রায়ই জুয়ার আসর চলে আসছে। এসব কেউ দেখেও ভয়ে না দেখার ভান করছে। গ্রামটি দুই উপজেলার বর্ডার হওয়ায় এলাকাটিতে অধিকাংশ প্রশাসন যাচ্ছেনা বলে জানা গেছে। এই সুযোগে তারা নির্বিগ্নে এসব ব্যবসা চালিয়ে যেতে সঙ্গম হচ্ছেন বলে অনেকেরই  একই অভিযোগ।
ভাণ্ডারিয়াও রাজাপুরের একাধিক মাদক ব্যবসায়ী কৌশলে রিমুটে ন্যায় রিমুট দিয়ে নিয়ন্ত্রন করছে মাদক ব্যাবসা। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কখনো মুখ খোলার সাহস পাচ্ছেনা । তারা আছেন সমাজের ক্লিন ইমেইজ নিয়ে। বর্তমান লকডাউনের মধ্যে যখন খেটে খাওয়া মানুষের কপালে চিন্তার ভাজ, তখন মাদক ব্যাবসায়ীদের চোখে-মুখে আনন্দের হাসি এবং ফুর ফুরা মেজাজে শুধুই ব্যস্ততা।

এ যে কিসের ব্যস্ততা তা কেউ জানে না। তাই শত ব্যস্ততার মাঝেও ভাণ্ডারিয়া ও রাজাপুরের পুলিশ প্রশাসনের প্রতি নজরদারি বাড়ানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন পৃথক দুই উপজেলার এলাকার সচেতন মহল।

0Shares