সর্বশেষঃ
ভান্ডারিয়ায় ড্রীম বাংলা ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ সাইদ চৌধুরীর নগত অর্থ সহায়তা[][][]ভাণ্ডারিয়ায় মুজিববর্ষের ঘরের কাজ পরিদর্শনে বিভাগীয় কমিশনার[][][]খালেদা জিয়ার লিভার ঠিকভাবে কাজ করছে না'[][][]আলজাজিরার সাংবাদিককে ‘জিহাদী’ বলে হিন্দুত্ববাদীদের আক্রমণ[][][]পরীকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা : প্রধান অভিযুক্ত নাসিরসহ গ্রেফতার ৫[][][]আগৈলঝাড়ায় ইসলামী এজেন্ট ব্যাংকিং কেন্দ্র উদ্বোধন[][][]আগৈলঝাড়ায় সাংবাদিক পরিচয়ে তিন প্রতারক আটক, মুচলেকা দিয়ে মুক্ত[][][]মাদরাসা শিক্ষাকে আন্তর্জাতিক মানের করতে কাজ করছে আ'লীগ সরকার--এমপি জ্যাকব[][][]৩০ জুন পর্যন্তবাড়লো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি[][][]স্বাস্থ্য নয়, অন্যান্য খাতের কোটি টাকা কানাডায় চলে গেছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ভাণ্ডারিয়ায় মেম্বার প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা রশিদের কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি :
আসন্ন ইউপি নির্বাচনে পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলার উত্তর ভিটাবাড়ীয়া ৩ নম্বর ওয়াডর্ থেকে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আব্দুর রশিদ এর কাছে চাঁদা দাবী সহ তাকে ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে আসছে স্থানীয় দুই প্রভাবশালী বলে অভিযোগ উঠছে।

মুক্তিযোদ্ধা কাজী আব্দুর রশিদের অভিযোগ, আসন্ন ইউপি নির্বাচনে উপজেলার ভিটাবাড়ীয়া ইউনিয়নের উত্তর ভিটাবাড়ীয়া ৩ নম্বর ওয়াডর্ থেকে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে তালা মার্কা নিয়ে তিনি নির্বাচনী মাঠে আছেন। কিন্তু বেশ কয়েক দিন ধরে নির্বাচনী এলাকা উত্তর ভিটাবাড়ীয়া গ্রামের মৃত মকবুল বিশ্বাসের ছেলে চিহিৃত সুদের ব্যবসায়ী,ভূমিদস্যু ফোরকান বিশ্বাসও তার সহযোগি মৃত কাদের কাজীর ছেলে এলাকার মাদক ব্যবসায়ী আজিম কাজী ১ লাখ ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। স্থানীয় স্কুলের কাছে ব্রিজের ওপরে বসে ফোরকান ও আজিম হুমকি দিয়ে বলে, তুই কিসের মুক্তিযোদ্ধা । নির্বাচন করতে হলে এলাকায় থাকতে হলে আমাদের দাবীকৃত টাকা দিতে হবে এবং এসব কথা কোথাও না বলার জন্য হুমকি দিয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা বলেন, এখানে আগামী ২১ জুন নির্বাচন। আসন্ন নির্বাচনে তিনি সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে প্রতিদ্বন্দিতা করতে চান । নিজের জান মালের নিরাপত্তা চেয়ে কেঁদে কেঁদে সাংবাদিকদের কাছে বলেন, আমি দেশ স্বাধীনের জন্য যুদ্ধ করেছি। আজ আমি আমার দেশে নানা হয়রানির শিকার হচ্ছি। তিনি মাননীয় প্রধান মন্ত্রী,স্থানীয় প্রশাসন ও সাংবাদিকদের কাছে সাহায্য চেয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, তিনি এলকায় একজন জনপ্রিয় ব্যক্তি। তাই আসন্ন নির্বাচনে মাঠে থেকে প্রতিদ্বন্দিতা করতে না দেয়ার জন্য তার বিরুদ্ধে নিবার্চনী প্রতিপক্ষরাও গভীর ষড়যন্ত চালিয়ে যাচ্ছে ।

এ ছাড়াও কয়েক মাস পূর্বে গভীর রাতে একটি সংঘবদ্ধ প্রতিপক্ষ মহল মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে পুড়িয়ে হত্যার লক্ষে তাদের বসতঘরে আগুন দিয়ে ছিলো। এতে রান্না ঘর পুরে ছাই হয়ে যায় এবং অল্পের জন্য তারা বেঁচে যান। এ ঘটনায় ইতোপূর্বে ওই ভুক্তভোগি মুক্তিযোদ্ধা ভাণ্ডারিয়া থানায় জিডি সহ জেলা পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

নির্বাচনী এলাকা উত্তর ভিটাবাড়ীয়া গ্রামের হাসিনা ও মমতাজ বেগম জানান, ওই কুচক্রি সন্ত্রাসীদের ভয়ে ও হুমকিতে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আব্দুর রশিদ এলাকায় গণসংযোগ ও প্রচার প্রচারনা চালাতে পাড়ছেনা। ওই সন্ত্রাসীদের অত্যাচারে আমরা ঘরে থাকতে পারছি না। আমাদের বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ করার চেষ্টায় প্রতিনিয়ত হামলা করছে এবং ষড়েযন্ত্র মূলক মামলা করে হয়রানী করে আসছে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত ফোরকান বিশ্বাসের কাছে জানতে চাইলে তিনি তার বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এলাকায় জমিজমা নিয়ে বিরোধ রয়েছে এবং মামলা চলছে। অপর অভিযুক্ত ব্যক্তি আজিম এর মুঠোফোনে কল দিলে তিনি বলেন, সব অভিযোগ সত্য নয়। তবে, আমার সাথে মুক্তিযোদ্ধার সাথে পারিবারিক ঘটনায় দ্বন্দ্ব রয়েছে।

0Shares